হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০০ কোটি ছাড়ালো

38
হোয়াটসঅ্যাপ

স্মার্টফোনের জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপলিকেশন হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২০০ কোটি ছাড়িয়েছে। সাম্প্রতিক এক ব্লগ পোস্টে হোয়াটসঅ্যাপ এমন তথ্য জানিয়েছে।

ফেসবুকের মালিকানাধীন জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপের ব্যবহারকারী সংখ্যা ২০১৬ সালে ছিল ১ কোটি। যা ২০১৮ সালে এসে দাঁড়ায় দেড় কোটিতে। আর সবশেষ তথ্যমতে চলতি বছরের শুরুতে তা ২০০ কোটি ছাড়ালো। সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপ তাঁদের আরও একটি অর্জনের কথা জানিয়ে ব্লগ পোস্ট করেছিল। সেই ব্লগ পোস্টে বলা হয়েছিল, গত ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানাতে ১০০ বিলিয়নের বেশি মেসেজ আদান প্রদান হয়েছে তাঁদের প্লাটফর্মে। যা হোয়াটসঅ্যাপের ইতিহাসে নতুন মাইলফলক।

হোয়াটসঅ্যাপের সিইও উইল ক্যাথকার্ট বলেন,

ব্যবহারকারীর ব্যক্তি-গোপনীয়তাকে অটুট রাখতে বিশ্বের বড় বড় নিরাপত্তা-সংক্রান্ত বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে। একই সঙ্গে এই মাধ্যমের অপব্যবহার রুখতে গ্রাহককে আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ দিতে এবং কোনও সমস্যা হলে তা রিপোর্ট করা থেকে শুরু করে সমাধান- এসব কিছুর জন্য সর্বাধুনিক প্রযুক্তিকে অন্তর্ভুক্ত করেছে হোয়াটসঅ্যাপ।

উল্লেখ্য যে, ২০১৪ সালে ১৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের বিনিময়ে হোয়াটসঅ্যাপকে কিনে নেয় ফেসবুক। ব্যবহারকারীর সংখ্যা বিবেচনায়, হোয়াটসঅ্যাপ এখন পৃথিবীর দ্বিতীয় জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম হিসেবে পরিচিতি পেল। কারণ, প্রথম অবস্থানে থাকা জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা ২৪০ কোটির বেশি। আর শুধু মেসেজিং অ্যাপগুলোর মাঝে তুলনা করলে হোয়াটসঅ্যাপের ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন সবচেয়ে বেশি। কারণ তুমুল জনপ্রিয় ফেসবুক মেসেঞ্জারের ব্যবহারকারীর সংখ্যাও এখন ১৬০ কোটির ঘরে। যা হোয়াটসঅ্যাপের সাথে তুলনায় পিছিয়ে পড়েছে।

হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীর সংখ্যা

ডিজিটাল যুগে একে অন্যের সাথে যোগাযোগ রক্ষায় হোয়াটসঅ্যাপের মতো মেসেজিং প্লাটফর্মগুলো গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। সে কারণেই এই অ্যাপগুলোর জনপ্রিয়তা বাড়ছে দিনদিন। এই জনপ্রিয়তা বজায় রাখতে প্লাটফর্মগুলো এখন জোর দিচ্ছে ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা রক্ষায়। হোয়াটসঅ্যাপ তাঁদের নতুন মাইলফলকের খবর জানাতে ব্লগ পোস্টের শিরোনাম দিয়েছে “Two Billion Users — Connecting the World Privately”। তাই তাঁদের ব্লগ পোস্টে বারবার উঠে এসেছে প্রাইভেসি রক্ষার বিষয়টি। আরও গোপনীয়তার সাথে মেসেজিং করার সুবিধা দিতে কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ কর্তৃপক্ষ। উল্লেখ্য যে, বাংলাদেশে যে কয়েকটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম জনপ্রিয়। তাদের মাঝে অন্যতম হল হোয়াটসঅ্যাপ। SimilarWeb এর তথ্যসূত্র মতে, বাংলাদেশে সর্বাধিক জনপ্রিয় স্মার্টফোন অ্যাপগুলোর মাঝে হোয়াটসঅ্যাপ ১২তম।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে আপনার মতামতটি লিখুন
দয়া করে আপনার নামটি লিখুন