ফেসবুকে আমিই ‘নাম্বার ওয়ান’ : ডোনাল্ড ট্রাম্প

55
ফেসবুকে ট্রাম্প

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘নাম্বার ওয়ান’ ডোনাল্ট ট্রাম্প! গর্বের সাথে এমনটাই বলেছেন মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্পের দাবি, তাঁর সাথে এক নৈশভোজে ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ তাঁকে এই তথ্য জানিয়েছেন। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রকাশিত সংবাদে এমনটাই জানা গেছে।

গত সোমবার এক রেডিও টকশোতে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, “রাতের খাবার খাওয়ার সময় জাকারবার্গ তাঁকে অভিনন্দন জানিয়ে বলছেন যে বৈশ্বিক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম ফেসবুকে তিনিই ১ নম্বর।” যদিও জাকারবার্গের সাথে সেই নৈশভোজ কবে অনুষ্ঠিত হয়েছে সে ব্যাপারে কিছু বলেননি ট্রাম্প। তবে ফেসবুকের এক মুখপাত্র নৈশভোজের বিষয়ে নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, জাকারবার্গের সাথে ট্রাম্পের শেষ সাক্ষাৎ অক্টোবর মাসের দিকে হয়েছিল। সেই সময়টাতেই তাঁরা একসাথে রাতের খাবার খেয়েছিলেন।

রেডিও টকশোতে অংশ নেয়া ট্রাম্প সোশ্যাল মিডিয়ার প্রশংসা করে বলেন, টুইটারের মতো প্ল্যাটফর্ম না থাকলে নির্বাচনে তিনি হেরে যেতেন। সংবাদমাধ্যমগুলোর চেয়ে টুইটারের গ্রহনযোগ্যতা তাঁর কাছে বেশি। টুইটারে তাঁর ফলোয়ার সংখ্যা প্রায় ৭ কোটি।

ভুয়া খবর ও তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে সম্প্রতি ২০২০ সালের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে তুমুল সমালোচনার মুখে পড়েছে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম গুলো। ফেসবুক ও টুইটারেও বিভিন্ন অসত্য বিবৃতি ও ষড়যন্ত্র ছড়ানোর ব্যাপারে অভিযোগ আছে স্বয়ং ট্রাম্পের বিরুদ্ধেও। ফেসবুকে কিসের ভিত্তিতে ট্রাম্প নিজেকে ‘নাম্বার ওয়ান’ দাবি করেছে তা নিশ্চিত না হওয়া গেলেও জনপ্রিয় এই সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে বিজ্ঞাপন দেয়ার দিক থেকে অবশ্য তিনি ১ নম্বর পজিশনেই আছেন।

গত অক্টোবরে ট্রাম্প ও জাকারবার্গের মধ্যকার অনুষ্ঠিত নৈশভোজে ফেসবুক পরিচালনা পর্ষদের সদস্য পিটার থিয়েলও উপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে। ফেসবুকের সঙ্গে ট্রাম্পের সম্পর্ক কী, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী সিনেটর এলিজাবেথ ওয়ারেন।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে আপনার মতামতটি লিখুন
দয়া করে আপনার নামটি লিখুন