ব্যবসার জন্য সঠিক সোশ্যাল মিডিয়া বেছে নিবেন যেভাবে

65
ব্যবসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া

তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে ব্যবসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া’র গুরুত্ব অজানা নয়। ছোট-বড় প্রতিটি ব্যবসার এখন পদচারনা আছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে। তাই আপনি যদি সেই স্রোতের বিপরীতে যেতে চান। সেক্ষেত্রে আপনার ব্যবসা অচিরেই গুটিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও কিছুটা থেকে যায়! তাই তথ্যপ্রযুক্তির এই সময়ে আপনার ব্যবসাকে যত দ্রুত সেই পরিবর্তনের সাথে মানিয়ে নিতে পারবেন ততই মঙ্গল। আপনার ছোট ব্যবসার জন্য হয়ত ওয়েবসাইটের প্রয়োজন এখনও হয়ে উঠেনি। কিন্ত সোশ্যাল মিডিয়ার প্রয়োজন ছোট-বড় সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্যই জরুরি।

আপনি নিশ্চই জানেন, অনলাইনে শত শত সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম আছে ব্যবহারের জন্য। কিন্ত সব সোশ্যাল মিডিয়ার নিশ্চই আপনার ব্যবসার জন্য গুরুত্বপূর্ণ নয়। তাই ব্যবসার জন্য আপনাকে বেছে নিতে হবে সবচেয়ে কার্যকারী সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম। যেহেতু একেক সোশ্যাল মিডিয়ার কাজ একেকরকম। তাই আপনার ব্যবসার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ প্লাটফর্ম বেছে নিতেও বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিতে হবে। আজকের পোস্টে থাকছে, ব্যবসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া বেছে নেওয়ার কয়েকটি টিপস।

জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া গুলো সম্পর্কে জানুন

যেমনটি আগেই বলেছি, অনলাইনে সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মের শেষ নেই। একেকটির কাজ একেক রকম। জনপ্রিয়তার দিক থেকেও আছে এসবের ভিন্নতা। তাই প্রথমে জনপ্রিয় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মগুলো সম্পর্কে ভালভাবে জানুন। কোন সোশ্যাল মিডিয়া কোন কাজের জন্য তৈরি, জনপ্রিয়তার মাত্রা ইত্যাদি। যেমনঃ ফেসবুক তৈরি একেক অপরের সাথে যুক্ত হওয়ার উদ্দেশ্যে। আবার অন্যদিকে ইউটিউব শুধুমাত্র ভিডিও দেখার জন্য। জনপ্রিয়তার দিক থেকেও দেশ ভিত্তিক ভিন্নতা লক্ষ্য করা যায়। StatCounter -এর তথ্যসূত্র অনুযায়ী, বাংলাদেশে ৯৭% সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী ফেসবুক ব্যবহার করে। কিন্ত চায়নায় ব্যবহারকারীর এই হার মাত্র ১০%। তাই ব্যবসার জন্য সঠিক সোশ্যাল মিডিয়া বেছে নিতে সর্বপ্রথম আপনাকে সব সোশ্যাল মিডিয়া সম্পর্কে ধারনা নিতে হবে। সবদিক থেকে সোশ্যাল মিডিয়া গুলোকে নিয়ে বিচার বিশ্লেষন করতে আপনাকে। তবেই আপনি পাবেন সবচেয়ে কার্যকারী সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মগুলোকে। যা আপনার ব্যবসার সফলতা অনেকাংশে বাড়িয়ে দিবে। আর ভুল প্লাটফর্ম আপনাকে ঠেলে দিবে ক্ষতির মুখে।

আপনার গ্রাহক এবং প্রতিযোগিদের অনুসরণ করুন

সোশ্যাল মিডিয়ায় সব ব্যবসার উপস্থিতির মূল উদ্দেশ্য গ্রাহকদের সাথে সম্পর্ক স্থাপন। তাই আপনার গ্রাহকরা যে প্লাটফর্মগুলো বেশি ব্যবহার করে থাকে সেগুলোর ব্যাপারে গুরুত্ব দিন। এক কথায়, সেগুলোই আপনার জন্য সঠিক সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম। আপনি নিশ্চই এমন কোন সোশ্যাল মিডিয়ায় পা দিবেন না যেখানে আপনার কোন গ্রাহকই নেই। গ্রাহক বলতে বর্তমান এবং সম্ভাব্য সব গ্রাহকদেরকেই বুঝানো হয়েছে। আপনার গ্রাহকরা কোন প্লাটফর্মে সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করছে তা জানার একটি কৌশল হলো আপনার প্রতিযোগিদেরকে ফলো করা। কারণ, আপনার প্রতিযোগি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সেসব প্লাটফর্মেই আছে যেগুলোতে তাঁরা গ্রাহকদের সাথে ভাল যোগাযোগ রাখতে পারছে। তাই সঠিক সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম বেছে নিতে আপনার গ্রাহক এবং প্রতিযোগিদেরকে বিবেচনায় রাখুন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় যোগ দেয়ার উদ্দেশ্য ঠিক করুন

কাস্টমারদেরকে সাপোর্ট দেয়া, সেলস বাড়ানো, সম্পর্ক তৈরি ও ধরে রাখা, অফার প্রমোশনসহ বিভিন্ন উদ্দেশ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় সক্রিয় থাকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো। তাই আপনিও আপনার ব্যবসার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া বেছে নেয়ার আগে ঠিক করুন আপনার মূল উদ্দেশ্য গুলো কি কি। যেমনঃ অনেক ব্যবসা প্রতিষ্ঠান কাস্টমারদেরকে চ্যাটিং সাপোর্ট দেয়ার জন্য হোয়াটসঅ্যাপ, ইমো, মেসেঞ্জারের মতো সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপগুলো বেছে নিয়েছে। আবার ওয়েবসাইট ভিজিটর বাড়ানোর জন্য পিন্টারেস্ট, রেডিটের মতো প্লাটফর্মগুলো বেশ কার্যকারী। তাই আপনাকে ঠিক করতে হবে ঠিক কোন কোন উদ্দেশ্যে আপনি সোশ্যাল মিডিয়ায় যুক্ত হবেন। উদ্দেশ্য ভেদে সোশ্যাল মিডিয়া বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্তও ভিন্ন হতে পারে।

আপনার মতামত দিন

দয়া করে আপনার মতামতটি লিখুন
দয়া করে আপনার নামটি লিখুন