সত্যতা যাচাই: বিপিএল উদ্বোধনী কনসার্টে টাকা নেননি জেমস?

53
জেমসের টাকা না নেয়া

গত ৮ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে পর্দা উঠেছে বিপিএল ৭ম আসরের। উদ্বোধনী ঐ জমকালো অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় ছিল সালমান, ক্যাটরিনা, সনু নিগামসহ আরও অনেকে। দেশীয় শিল্পীর মধ্যে গান পরিবেশন করেছেন জনপ্রিয় ব্যান্ডশিল্পী জেমস। আর সেই কনসার্টের পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনায় আসেন জেমস। সংবাদ ছড়িয়ে পড়ে, ‘বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান থেকে পারিশ্রমিক নেননি জেমস’। মুহূর্তেই এই ঘটনা ভাইরাল হয়ে যায় ফেসবুকে। কিন্ত আসলেই কি চুক্তিবদ্ধের ১৬ লাখ টাকা নেননি জেমস? ভার্চুয়াল ভুবনের আজকের ফ্যাক্ট চেকিং পোস্টে আমরা তুলে ধরার চেস্টা করব আসল সত্যটি।

যা দাবী করা হয়েছে: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টে লেখা হয়েছে, “বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের জন্য সংঙ্গীতশিল্পী জেমসের সঙ্গে ২০ মিনিটের জন্য ১৬ লাখ টাকায় কন্ট্রাক্ট হয়েছিল; কিন্তু জেমস কোনো টাকা নেননি। তিনি বিসিবিকে বলেছেন যে, শীতের রাতে রাস্তার অসহায় মানুষদেরকে এই টাকা দিয়ে দেওয়ার জন্য। গুরু তুমি মহান।”

আসল সত্য: জেমসের টাকা না নেয়ার বিষয়টা পুরোটাই গুজব।

সত্যতা যাচাই: ‘জেমসের টাকা না নেয়া’ ইস্যু

বঙ্গবন্ধু বিপিএল ২০১৯‘ -এর জমকালো উদ্বোধনী কনসার্টে গান গেয়েছেন ব্যান্ডশিল্পী জেমস। আর এজন্য বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সাথে ১৬ লাখ টাকায় চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। শুধু তাই নয়! অনুষ্ঠানের আগেই চুক্তির সময়েই অগ্রিম হিসেবে বুঝে নিয়েছিলেন পারিশ্রমিকের অর্থ। কিন্ত ফেসবুক গুজব ছড়িয়ে পড়ে, বিপিএলের এই অর্থ নেননি জেমস। বরং পারিশ্রমিকের ১৬ লাখ টাকা শীতার্ত মানুষদেরকে দান করার জন্য বলেছেন। এই সংবাদ ছড়িয়ে পড়ার পর বিপিএল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের দায়িত্বে থাকা বিসিবি সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেছেন, “সাধারণত এ ধরনের অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রে শিল্পীরা অ্যাডভান্স নিয়ে নেন। উনি যদি টাকা না নিতেন, তাহলে আমি বিষয়টা জানতাম। তবুও আমি বিষয়টা নিশ্চিত হওয়ার জন্য জনাব শেখ সোহেলের (বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান) কাছে জানতে চেয়েছিলাম, তিনিও জানিয়েছেন পুরো বিষয়টা একেবারে মিথ্যা, ফেক। এ ধরনের কোনো ঘটনাই ঘটেনি। পেমেন্ট না নেয়া কিংবা চ্যারিটি ফান্ডে দেয়ার প্রশ্নই আসে না। কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে হয়তো ফেসবুকে গুজব রটিয়ে দিয়েছে।”

‘জেমসের টাকা না নেয়া’ ইস্যুতে জেমসের ম্যানেজার রবিন ঠাকুরও নিশ্চিত করেছেন, ভাইরাল হওয়া খবরটি পুরোটাই ভুয়া। তিনি বলেন, “খবরটি ভুয়া। কেউ ইচ্ছা করে ছড়িয়েছে। কোথাও কোনো অনুদান দিলে জেমস নিজেই সাংবাদিকদের মাধ্যমে ঘোষণা করে সেটি জানাবেন।”

আপনার মতামত দিন

দয়া করে আপনার মতামতটি লিখুন
দয়া করে আপনার নামটি লিখুন